রিপা মাহমুদ এর ছড়া ও কবিতা সমগ্র

/ / সংগৃহীত কবিতার আসর

কবির নাম রিপা মাহমুদ।  কবির গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার কোম্পানীগঞ্জ থানার দক্ষিন মুছাপুর গ্রামে।

কবির বাবা মতিন সওদাগর মাতা রাশিদা বেগম। কবি রিপা মাহমুদ অনলাইনে বেশ এ্যাকটিভ।

তিনি একজন গীতিকার সুরকার কবিও কথা-সাহিত্যিক ছড়াকার ও আবৃত্তি শিল্পী।

তার প্রকাশিত এ্যালবামের সংখা ১১। এগার এ্যালবামে এই পর্যন্ত সত্তরটি গান প্রচার হয়েছে।

তার রচিত গল্পগ্রন্থ একটি,  কাব্যগ্রন্থ একটি,  গীতিকাব্য গ্রন্থ একটি, ও  উপন্যাস একটি প্রকাশিত হয়েছে।

আরো জানুন: ►  ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়াতে পারে স্যামসাং গ্যালাক্সি নোট ৮-এর এস পেনে
                         ► বাংলাদেশে মোবাইল ফোর জি সেবা কতটুকু কার্যকর ভুমিকা রাখতে পারবে?

 

ছড়াঃ বিপরীত

রচনাঃ রিপা মাহমুদ।

টুনটুনিটা ঘুমিয়ে থাকে, পা রেখে উপরে!
আকাশ নাকি ভেঙ্গে পড়বে, যে কোনদিন দুপুরে।

টিয়া পাখির বুলি শুনে, চুঁড়ই পাখির বন্ধ ডাক!
খেক-শিয়ালের কান্ড দেখে, মুরগীটা হয় অবাক।

মাছরাঙা চুরি করছে জানি, গহীন বিলের মাছ!
দৌঁড়া সাপের বিচার হচ্ছে, কি যে সর্বনাশ।

ইঁদুরে কাটে ঘরের গোলা, বিড়াল মারছে টাঙিয়ে!
কুকুর কামড় দিয়েছে খোকায়, মা বাবারে ডিঙিয়ে।

বেলা শেষে হিসাব নিকাশ, ভাদ্র মাসে শীত।
যাহা মানুষ করে যাচ্ছে, সবই বিপরীত।

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ শিলাবৃষ্টি

রচনাঃ রিপা মাহমুদ।

শিলাবৃষ্টি পড়ছে দেশে ফাটছে মাথা মানুষের,
তবুও তো ঘুম ভাঙেনি ঘুমন্ত বেহুশের!

চৈত্র বৈশাখে শিলাবৃষ্টি এমন তো আর দেখিনি?
কিসের সংকেত দিচ্ছে রবে হিসেব কেউ করিনি!

নদী নালা খালে বিলে বর্ষার আগে বন্যা!
রাস্তা ঘাঠে কাঁদা জমেছে জাতির কপালে হর্ণা।

গগন জুড়ে মেঘের খেলা বাতাসও খুব ভারী!
গরু মহিষ ঘরের ভেতর করছে আহাজারী!

গরীবের কষ্ট বেড়ে চলেছে ধনী দালানের ভিতর,
মানবতা চরম পর্যায়ে গেছে বিবেকহীনা ইতর।

রবের কথা ভুলে মানুষ ডোল বাজায় মন্দিরে!
সব মানুষই বড় মাওলানা সত্যকথা বন্ধিরে।

সময় এসেছে আল্লাহ বলার মসজিদে মসজিদে চলো!
মাথায় টুপি পাঞ্জাবী পড়ে আল্লাহু আল্লাহু বলো।

তোমার মালিক তুমি নই অন্য একজন!
এই কথাটি করে স্মরণ করিও দিন যাপন!

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

গানঃ কিউটের ডিব্বা।

কথা ও সুরঃ রিপা মাহমুদ।

আমার মুখে নাইরে আটা ময়দা
চোখে নাইরে রং।
আমি চুলগুলো পাম্প করিয়া
দেখাইনা রং ঢং।
আমি সত্য নাকি মিথ্যা বলছি
বাপ দাদারে জিগ্গ্যা——
আমি ছোট থেকে সাদা সুন্দর
কিউটের ডিব্বা—ও ছ্যামরা?

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

ইসলামী সংগীতঃ হবে কেয়ামত।

রচনায়ঃ রিপা মাহমুদ।

একদিন হবে কেয়ামত’একদিন হবে কেয়ামত?
ইসরাফিলে ফুঁ দিলে রে দেখবি আলামত—
একদিন হবে কেয়ামত–!

এই পৃথবী ধ্বংস হবে রইবে না কিছু!
হাশরে তোর বিচার হবে মাথা রবে নিঁচু।
জবান বন্দি দিতে থাকবে শরীরের অঙ্গ!
কি কারণে করলিরে তুই নামাজ রোজা ভঙ্গ—-!!
দেখবি সেইদিন মায়ার নবী রবের নেয়ামত——
একদিন হবে কেয়ামত——-!!

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ আমি দেখেছি।

রচনাঃ রিপা মাহমুদ।

আমি দেখে-ছি স্বপ্নের সাথে, বাস্তবতার কোন মিল নেই।
দেখেছি ভালো মানুষদের, এখন আর বেল নেই।

আমি দেখেছি মেঘের আঁড়ালে, সূর্যকে হাসতে।
দেখেছি হিন্দুদের মন্দিরে, মুসলিম কন্যাকে নাচতে।

আমি দেখে-ছি পুষ্পকলি ফোটার, আগে ঝরতে।
দেখেছি মায়ের কোলে, ধর্ষিতা মেয়েকে মরতে।

আমি দেখেছি পুত্রের হাতে, পিতার কাটা লাশ।
দেখেছি রাস্তা ঘাটে, লোহার বদলে বাঁশ।

আমি দেখে ছি যৌতুকের দায়ে, গৃহবধুর আত্মহত্যা।
দেখেছি পর্দার আঁড়ালে, বিয়ের আগে অন্তস্বত্ত্বা।

আমি দেখেছি বীরশ্রেষ্ঠদের, ছেলেরা ফেরিওয়ালা।
দেখেছি ক্ষমতার দাপটে, রক্তক্ষয়ী নির্মম খেলা।

আমি চাইনি এমন স্বাধীনতা, চেয়েছি একটু শান্তি।
পায়নি আমার অধিকার, পেয়েছি হতাশা ক্লান্তি।

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ আমার দেশের পুলিশ।

রচনায়ঃ রিপা মাহমুদ।

আমার দেশের পুলিশ গুলো যদি এমন হতো।
স্বদেশ থেকে জুলুম অত্যাচার জলদি মুছে যেতো।

আমার দেশের পুলিশ গুলো যদি এমন হতো।
গরীবের হক কেউ খেতো না গরীব ষোল আনা পেতো।

আমার দেশের পুলিশ গুলো যদি এমন হতো।
বাচ্চা শিশু ধর্ষণ হতো না কাঁদতো না মা যত।

আমার দেশের পুলিশ গুলো যদি এমন হতো।
অন্য কিছু হওয়ার আগে নামাজ কায়েম হতো।

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

গানঃ ছলনায় ভরা।

কথা ও সুরঃ রিপা মাহমুদ।

আমি কালবৈশাখী ঝড় দেখেছি
দেখেছি ভাদ্রের খরা।
আমি সাগরের ঘর্ণিঝড় দেখেছি
দেখেছি মরু সাহারা।
শুধু তোর মত পাষাণী দেখিনি
যার হৃদয়টা ছলনায় ভরা——-!!

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

গানঃ ও প্রাণ পাখি ময়না।

কথা ও সুরঃরিপা মাহমুদ।

আমারে কি মনে পড়ে না
ও প্রাণ পাখি ময়না
আমারে কি মনে পড়ে না—–!!
তোরে বেশি মনে পড়ে
বর্ষা মৌসুম এলে।
আরও বেশি মনে পড়ে
শাপলা বিলে গেলে।
তোর মনটা কেন চুনাপাথর
শক্ত ধূলিকণা———
ও প্রাণ পাখি ময়না—-!!

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ স্বাধীনতা তুমি।

রচনায়ঃরিপা মাহমুদ।

মুক্ত বাতাসে ঘুরে বেড়াবো বলে মুক্ত করেছি মাতৃভূমি।
ক্ষমতার রুপরেখায় বদলে গেলে বারবার স্বাধীনতা তুমি।

অঙ্গীকার করেছিলে বজ্রকন্ঠে ফিরিয়ে দেবে আমার অধিকার।
অর্থের ভূমধ্যসাগর পেয়ে তুমিও হয়ে গেলে তাবেদার।

তোমার চেতনায় ধ্বংস আজ কোটি কোটি মজলুম।
রিক্তের বেদনে পরাভূর্ষিত ধর্ম নিরন্তে হত্যা,খুন ঘুম।

স্বাধীনতা তুমি হারিয়ে গেলে পরাধীনতার আঁধারে।
আলোর মিছিল অন্ধকার হয়ে বিবেকহীনতার কাতারে।

নিরহ বেকার যুবক গুলো হাত পা তাদের বাধা।
তোমার স্লোগান ধরতে গেলে প্রাণ কেড়ে নেয় পীরজাদা।

স্বাধীনতা তুমি নিজেই বলেছো যদি পিঠ ঠেকে দেয়ালে।
অলসও নাকি খলস মারে বাঁচার জন্য খেয়ালে।

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ মা ও খোকা।

রচনায়ঃরিপা মাহমুদ।

মা বলছে খোকা রে তোর হাতে এটা কি?
খোকা বলছে মানুষ মারার সাদা চাপাতি।

মা বলছে শুনরে খোকা জীব হত্যা মহাপাপ।
খোকা বলছে এটা আদর্শ বলছে আমার বাপ।

মা বলছে এটা আবার কি ওরে খোকা বাবা।
খোকা বলছে সকালের নাস্তা প্রেন্সি ইয়াবা।

মা বলছে তোর বাবা সৎ ছিল এসব তুই করিস না।
খোকা বলছে নেতা বলছে মা বাবার কথা ধরিস না।

মা বলছে তোকে খোকা জম্ম দিয়ে ভুল করেছি।
খোকা বলছে তোমার দোষ নেই ভাগ্যে মরেছি।

মা বলছে খোকারে তুই আয় ফিরে আয়।
খোকা বলছে রাস্তা বন্ধ মেরে ফেলবে লাল ভাই।

মা বলছে কে করেছে  খোকারে তোর ক্ষতি।
খোকা বলছে স্বাধীন দেশের স্বাধীন রাজনীতি।

¸¸.•*¨*•♫♪ ░ শে ░ ষ ░ (¯”•.¸** ¸.•”¯) ░ স ░ মা ░ প্ত ░ ♪♫•*¨*•.¸¸♫♪

কবিতাঃ “বদলে যাচ্ছে সব”

রচনায়ঃরিপা মাহমুদ।

পদ্মা পাড়ের ইলিশ গুলো এখন তেমন দেখিনা।
দেখার পরেও কেন জানি কিনতে পারিনা।

চিংড়ি মাছের উপর দিয়ে চলতো একসময় নৌকা।
এখন দেখি জমি জমায় মাছের বদলে পোকা।

গরুর দুধের কমতি ছিলো না হাঁটে কিংবা বাজারে।
দুধি এখন বিক্রি হচ্ছে দেখো হাজার টাকা হাজারে।

গ্রামের ঐ মেটোপথ এখন চোখে পড়ে না।
বিদ্যাসাগরদের মত স্বদেশ এখন কেউ গড়ে না।

বদলে যাচ্ছে সমাজ নীতি পরিবর্তন পৌরনীতি।
এইসব কিছুর জন্য দায়ী অন্ধ রাজনীতি।

বদলে গেছে সব আগের মত নাইরে ভাই।
যুগটা এখন শুরু হয়েছে কারে মেরে কারে খাই

আরো জানুন:

(১) পাল্ কীর গান – সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত

(২) স্বাধীনতা তুমি – শামসুর রাহমান

 

You must be logged in to post a comment.